কখন আল্লাহ্‌র ভালোবাসা আযাব থেকে নাজাতের কারণ হবে

কতিপয় সালাফ থেকে বর্ণিত হয়েছে, একদল লোক দাবি করলো যে, তারা আল্লাহকে ভালোবাসে। তখন আল্লাহ তা‘আলা এ আয়াত নাযিল করলেন। আল্লাহ তা‘আলা বলেন, ﴿قُلْ إِنْ كُنْتُمْ تُحِبُّونَ اللَّهَ فَاتَّبِعُونِي يُحْبِبْكُمْ اللَّهُ وَيَغْفِرْ لَكُمْ ذُنُوبَكُمْ وَاللَّهُ غَفُورٌ رَحِيمٌ قُلْ أَطِيعُوا اللَّهَ وَالرَّسُولَ فَإِن تَوَلَّوْا فَإِنَّ اللَّهَ لَا يُحِبُّ الْكَافِرِينَ﴾ ‘‘বলো, তোমরা যদি আল্লাহকে ভালোবেসে থাক তাহলে …

Read more

Share:

মসজিদ আল্লাহর ঘর এই কথা কি সঠিক

প্রশ্ন: মসজিদ আল্লাহর ঘর এই কথা কি সঠিক? আলেমগন বলেন মসজিদ আল্লাহর ঘর, তিনিই এর হেফাযত করে থাকেন। কিন্তু প্রাকৃতিক দূর্যোগ বা যুদ্ধের সময় দেখা যায় যে অনেক মসজিদও বিলীন হয়ে যায়। এর ব্যাখ্যা কী? ▬▬▬▬▬▬▬▬💠💠💠▬▬▬▬▬▬▬▬ উত্তর: পৃথবীর সকল মসজিদকে আল্লাহ নিজের ঘর একথা কুরআন সুন্নাহ দ্বারা প্রমানিত।আর এজন্য মসজিদগুলিকে ‘বায়তুল্লাহ’ বা ‘আল্লাহর ঘর’ বলা …

Read more

Share:

মহান আল্লাহ কেয়ামতের বান্দার সাথে সম্পর্কিত গোনাহও কি মাফ করবেন

প্রশ্ন: মহান আল্লাহ কেয়ামতের মাঠে বান্দাদের সব পাপ ক্ষমা করবেন যদি শিরক না থাকে তাহলে কি তিনি বান্দার সাথে সম্পর্কিত গোনাহও মাফ করবেন? বিস্তারিত জানতে চাই। ▬▬▬▬▬▬▬▬💠💠💠▬▬▬▬▬▬▬▬ উত্তর: মহান আল্লাহ পৃথিবীতে মানুষকে পাঠিয়েছেন তাঁর ইবাদত করার জন্য।সাথে মানুষ আল্লাহর আদেশ-নিষেধ মেনে চলবে, এটা তার জন্য ফরয। আল্লাহর আদেশ-নিষেধ মেনে চলা তাঁর ইবাদতের অন্তর্গত। কিন্তু মানুষ …

Read more

Share:

মহান আল্লাহ কোথায় আছেন এবং আরশ কী

❏প্রশ্ন: মহান আল্লাহ কোথায় আছেন? আরশ কী? আরশ দ্বারা উদ্দেশ্য কি ক্ষমতা ও রাজত্ব? আরশ সম্পর্কে সঠিক আক্বীদা কি হবে? ▬▬▬▬▬▬▬▬💠💠💠▬▬▬▬▬▬▬ উত্তর: মহান আল্লাহ বলছেন, তিনি আরশের উপর সমুন্নত এ মর্মে পবিত্র কুরআনে ৭টি আয়াত বর্ণিত হয়েছে। [আল-আ‘রাফ ৭/৫৪; ইউনুস ১০/৩; রা‘দ ১৩/২; ত্বোয়াহা ২০/৫; আল-ফুরক্বান ২৫/৫৯; সাজদাহ ৪; হাদীদ ৪; মুসলিম হা/৮৩৬, ‘মসজিদ’ অধ্যায়; …

Read more

Share:

মহান আল্লাহ্‌ কোথায় আছেন এবং যারা বিশ্বাস করে আল্লাহ সর্বত্র বিরাজমান তাদের এই আক্বিদা কতটুকু সঠিক

প্রশ্নঃ মহান আল্লাহ্‌ কোথায় আছেন? যারা বিশ্বাস করে আল্লাহ সর্বত্র বিরাজমান তাদের এই আক্বিদা কতটুকু সঠিক দলিল সহ জানতে চাই। ▬▬▬▬▬▬▬▬▬❂▬▬▬▬▬▬▬▬ উত্তর: মহান আল্লাহ্‌ আছেন সাত আসমানের উর্ধে আরশের উপর।তিনি স্রষ্টা, সৃষ্টি থেকে উর্ধে থাকেন। তবুও তিনি বান্দার নিকটবর্তী। তার জ্ঞান ও দৃষ্টি সর্বত্র আছে। মুমিনের হৃদয়ে তার যিকর বা স্মরণ থাকে।কিন্তু তিনি আছেন সাত …

Read more

Share:

নিশ্চয় আল্লাহ দ্রব্যমূল্যের হ্রাস-বৃদ্ধি এবং নিয়ন্ত্রণ করেন হাদীসটির সঠিক ব্যাখ্যা কি?

প্রশ্ন: নিশ্চয় আল্লাহ দ্রব্যমূল্যের হ্রাস-বৃদ্ধি এবং নিয়ন্ত্রণ করেন। হাদীসটির সঠিক ব্যাখ্যা কি? বিস্তারিত জানতে চাই। ▬▬▬▬▬▬▬💠💠💠▬▬▬▬▬▬▬উত্তর: আনাস ইবনু মালেক (রাঃ) থেকে বর্ণিতঃ তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম) এর যুগে একবার জিনিসপত্রের দাম বেড়ে গেলো। লোকজন বললো, হে আল্লাহর রাসূল! জিনিসপত্রের দাম বেড়ে গেছে। অতএব আপনি আমাদের জন্য মূল্য বেঁধে দিন। তিনি বলেনঃ “‏ …

Read more

Share:

আল্লাহর জন্য কাউকে ভালবাসা এবং আল্লাহর জন্য ঘৃণা করার প্রকৃত অর্থ কি

প্রশ্ন: আল্লাহর জন্য কাউকে ভালবাসা এবং আল্লাহর জন্য ঘৃণা করার প্রকৃত অর্থ কি?কাউকে আল্লাহর জন্য ভালবাসি বা ঘৃণা করি এটি ব্যক্তিকে সরাসরি বলা যাবে কি? ▬▬▬▬▬▬▬▬❂▬▬▬▬▬▬▬▬▬ ভূমিকা: মানুষ হিসাবে একজন অন্যজনের প্রতি ভালবাসা একটি স্বভাবজাত বিষয়। মানুষ নিজের প্রয়োজনে, ভবিষ্যতে কারো সাহায্য পাওয়ার জন্য, অতীতে কারো কাছ থেকে সাহায্য পাওয়ার কারণে একে অপরকে ভালবেসে থাকে। …

Read more

Share:

মুমিনগণ ক্বিয়ামতের দিন আল্লাহকে স্বচক্ষে দেখবে এ বিষয়ে বিস্তারিত

প্রশ্ন: মুমিনগণ ক্বিয়ামতের দিন আল্লাহকে স্বচক্ষে দেখবে। এখন এই স্বচক্ষে দর্শন বলতে কি আল্লাহর সন্তুষ্টি বুঝানো হয়েছে নাকি সরাসরি দেখা বুঝানো হয়েছে, বিস্তারিত জানতে চাই। ▬▬▬▬▬▬▬💠💠💠▬▬▬▬▬▬▬ উত্তর: মহান আল্লাহকে স্বচক্ষে দেখা সম্পর্কে আহলুস সুন্নাহ ওয়াল জামা‘তের আক্বীদা হল, ‘ক্বিয়ামতের দিন মুমিনগণ আল্লাহকে সেরকমই দেখতে পাবে, যেমন পরিস্কার আকাশে দিনের বেলায় সূর্য এবং রাতের বেলায় পূর্ণিমার …

Read more

Share:

আল্লাহ তা‘আলা প্রতি রাতের শেষ তৃতীয়াংশে প্রথম আকাশে নেমে আসেন এর সঠিক ব্যাখ্যা

প্রশ্ন: মহান আল্লাহ তা‘আলা প্রতি রাতের শেষ তৃতীয়াংশে প্রথম আকাশে নেমে আসেন। কিন্তু পৃথিবীর সর্বত্র একসাথে শেষ রাত হয় না। তাহলে হাদীসটির সঠিক ব্যাখ্যা কী? ▬▬▬▬▬▬▬▬❂▬▬▬▬▬▬▬▬ উত্তর: মহান আল্লাহ তা‘আলা আমাদের রব। তিনি শোনেন ও জানেন আমরা যা প্রকাশ করি আর যা গোপন করি। বান্দার কোনো ডাকই তাঁর জানার বাইরে নয়। তিনি সর্বাবস্থায় আমাদের আকুতি …

Read more

Share:

মহান আল্লাহর সিফাত বা গুনাবলি কত প্রকার ও কি কি

আল্লাহর সিফাত দুই প্রকার। যথা: (১). সত্তাগত সিফাত (২). কর্মগত সিফাত। (১). সত্তাসংলগ্ন গুণ হলো, যেগুলো অনাদি কাল থেকে আল্লাহর সত্তার সঙ্গে রয়েছে এবং অনন্তকাল ধরে থাকবে। যেমন ইলম, কুদরত, শ্রবণ, দর্শন, পরাক্রমশীলতা, হিকমত, সর্বোচ্চতা,‘আযমত। এর মধ্যে সংবাদজাত গুণ যেমন চেহারা, দু‘হাত, দু‘চোখ ইত্যাদিও শামিল রয়েছে। . (২). আর কর্মসংলগ্ন গুণ হলো ওইসব গুণ, যা …

Read more

Share:

কাউকে আল্লাহর রহমত হতে নিরাশ করা যাবেনা

প্রিয় পাঠক, বর্তমানে ওয়াজ মাহফিল বা জুমার খুতবায় কিছু তরুণ দ্বীনের দাঈগন-কে শরীয়তের হুকুম আহকাম সম্পর্কে বিস্তারিত ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ ছাড়াই হুটহাট মুসলিমদেরকে গণহারে কাফের বা জাহান্নামী বলে আখ্যা দিতে দেখা যাচ্ছে যা মোটেও কাম্য নয়। দ্বীনি বিষয়ে বক্তব্য দেওয়ার পূর্বে তাদের উচিত আরো গভীরভাবে পড়াশোনা করা এবং সালাফদের ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ দেখা। হুটহাট ফাতওয়া দিয়ে মানুষকে …

Read more

Share: