শিয়ারা কি কাফের

প্রশ্ন: শিয়ারা কি কাফের? আহলে সুন্নাহ ওয়াল জামআত ও শিয়াদের মাঝে মতভেদের বিষয়গুলো জানা আমাদের একান্ত প্রয়োজন। আশা করব তাদের আকিদা-বিশ্বাসগুলো পরিষ্কারভাবে তুলে ধরবেন। ▬▬▬▬▬▬▬◄❖►▬▬▬▬▬▬▬▬ উত্তর: যে সকল ভ্রান্ত ফের্কা সম্পর্কে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মানব রাসূল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) ভবিষ্যদ্বাণী করে গেছেন, সেগুলোর মধ্যে একটি হল শিয়া। শিয়া শব্দের অর্থ অনুসারী, গোষ্ঠী ইত্যাদি। অভিশপ্ত ই-হু-দীদের …

Read more

Share:

ছূফীবাদের পরিভাষায় ছূফী কাকে বলে এবং ছূফী মতবাদের জন্ম হয় কবে

প্রশ্ন: ছূফীবাদের পরিভাষায় ছূফী কাকে বলে?ছূফী মতবাদের জন্ম হয় কবে? ছূফীদের ভ্রান্ত আকিদা সম্পর্কে বিস্তারিত বর্ননাসহ ▬▬▬▬▬▬▬▬💠💠💠▬▬▬▬▬▬▬▬ ▪️ভূমিকা: আস-সৌফ’ থেকে সূফী শব্দটির উৎপত্তি। আর ‘সৌফ’ বলা হয় পশমী কাপড়কে। হিন্দুদের যোগী-সন্যাসীদের ন্যায় মুসলিমদের এক শ্রেণির সৌফ বা পশমী কাপড় পরে নিজেদের সাধু হিসেবে পরিচয় দিতে লাগে। তখন থেকেই ইসলাম বিকৃতকারী এই ধরণের সন্যাসীদের সূফী হিসেবে …

Read more

Share:

মহান আল্লাহ্‌ কোথায় আছেন এবং যারা বিশ্বাস করে আল্লাহ সর্বত্র বিরাজমান তাদের এই আক্বিদা কতটুকু সঠিক

প্রশ্নঃ মহান আল্লাহ্‌ কোথায় আছেন? যারা বিশ্বাস করে আল্লাহ সর্বত্র বিরাজমান তাদের এই আক্বিদা কতটুকু সঠিক দলিল সহ জানতে চাই। ▬▬▬▬▬▬▬▬▬❂▬▬▬▬▬▬▬▬ উত্তর: মহান আল্লাহ্‌ আছেন সাত আসমানের উর্ধে আরশের উপর।তিনি স্রষ্টা, সৃষ্টি থেকে উর্ধে থাকেন। তবুও তিনি বান্দার নিকটবর্তী। তার জ্ঞান ও দৃষ্টি সর্বত্র আছে। মুমিনের হৃদয়ে তার যিকর বা স্মরণ থাকে।কিন্তু তিনি আছেন সাত …

Read more

Share:

পীর কাকে বলে? ইসলামে পীর মুরিদের কোন স্থান আছে কি?

প্রশ্ন: পীর কাকে বলে? ইসলামে পীর মুরিদের কোন স্থান আছে কি? ▬▬▬▬▬▬▬💠💠💠▬▬▬▬▬▬▬ ভূমিকা: পবিত্র কুরআনের যে আয়াত গুলোর অপব্যাখ্যা করে প্রচলিত পীর তাদের বিনা পুঁজির ব্যবসা টিকিয়ে রেখেছে আজ সেই সংশয় নিরসন করব ইন শাহ্ আল্লাহ। ইসলাম মহান আল্লাহ কর্তৃক মনোনীত একমাত্র পূর্ণাঙ্গ জীবন বিধান। যা মেনে চলা সমগ্র মানব ও জিন জাতির উপর ফরয। …

Read more

Share:

হিন্দুদের কালী পূজা, দুর্গাপূজা ও অন্যান্য পূজা উপলক্ষে সেখানে যাওয়া ও অংশগ্রহণ করা এবং তাদের ধর্মীয় অংশ হিসাবে বলি দেওয়ার জন্য তাদের কাছে ছাগল, বেড়া বা দুম্বা ইত্যাদি বিক্রি করা

প্রশ্ন: একজন মুসলিম হিসেবে হিন্দুদের কালী পূজা, দুর্গাপূজা ও অন্যান্য পূজা উপলক্ষে সেখানে যাওয়া, অংশগ্রহণ করা এবং তাদের ধর্মীয় অংশ হিসাবে বলি দেওয়ার জন্য তাদের কাছে ছাগল, বেড়া বা দুম্বা ইত্যাদি বিক্রি করা যাবে কি? ▬▬▬▬▬▬▬💠💠💠▬▬▬▬▬▬▬ ভূমিকা: মহান আল্লাহ তাআলা মানুষকে এ পৃথিবীতে তাঁর প্রতিনিধি হিসাবে একমাত্র তাঁরই ইবাদতের নিমিত্তে সৃষ্টি করেছেন (সূরা যারিয়াত ৫৬)। …

Read more

Share:

হাদিস অস্বীকারকারী কাফের।হাদীস যে মহান আল্লাহর অহী তা বস্ত্তবিজ্ঞান ও চিকিৎসা বিজ্ঞান দ্বারাও প্রমাণিত

মানব স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর হ’তে পারে এমন সব বিষয় সম্পর্কে আজ থেকে প্রায় ১৪৫০ বছর পূর্বে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মানব রাসূল (ﷺ) তার উম্মতকে সতর্ক করেছেন। আম্মিজান ‘আইশাহ (রাদ্বিয়াল্লাহু ‘আনহা) [মৃত: ৫৮ হি.] হ’তে বর্ণিত, রাসূল (ﷺ) বলেন, . إنه خلق كل إنسان من بني آدم على ستين وثلاثمائة مفصل . নিশ্চয়ই আল্লাহ প্রত্যেক আদম সন্তানকে …

Read more

Share:

আব্দুল মুত্তালিব জাহান্নামী তার দলিল

প্রথমত, প্রশ্নকারীর জানা উচিত যে, কুরআন ও সুন্নাহতে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে যে কেবলমাত্র ঈমানদাররাই জান্নাতে প্রবেশ করবে এবং যারা মুশরিক অবস্থায় মারা যাবে তাদের জন্য আল্লাহ জান্নাত স্থায়ীভাবে হারাম করেছেন।আল্লাহ তা‘আলা বলেন, ‘কেউ ইসলাম ব্যতীত অন্য কোনো দ্বীন তালাশ করলে, তা কখনো তার কাছ থেকে কবুল করা হবে না এবং আখিরাতে সে হবে ক্ষতিগ্রস্তদের অন্তর্ভুক্ত।’’ …

Read more

Share:

আহলে কুরআন বা হাদীহ অস্বীকারকারীদের কিছু বিভ্রান্তিমূলক সংশয় ও তার নিরসন

আহলে কুরআন বা হাদীস বিরোধীদের বিভ্রান্তিকর হাতিয়ারের নাম হল, অনৈতিক যুক্তি। তারা আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত সাধারণ মানুষকে আদর্শচ্যুত করার জন্য তাদের সামনে কিছু উদ্ভট প্রশ্ন ও নীতিহীন যুক্তি পেশ করে থাকে। নিম্নে তাদের কিছু বিভ্রান্তিমূলক তিনটি সংশয় ও তার মোক্ষম জবাব উপস্থাপন করা হল: ▪️প্রথম সংশয়: তারা বলে, আমাদের জন্য আল্লাহ তা‘আলার কিতাব-ই যথেষ্ট। কেননা …

Read more

Share:

শরীয়তের আলোকে আহলে কুরআন বা হাদীস অস্বীকারকারীদের বিধান

ইসলামী শরী‘আতের প্রধান দু’টি উৎস হল, কুরআন এবং সহীহ হাদীস, যা মুসলিম মিল্লাতের মূল সম্পদ। কুরআন ইসলামের আলোকস্তম্ভ আর হাদীস হল তাঁর বিচ্ছুরিত আলোকচ্ছটা। মূলত হাদীস হল কুরআনের নির্ভুল ও বিস্তারিত ব্যাখ্যা এবং রাসূল (ﷺ)-এর আদর্শ, কর্মনীতি ও শরী‘আতের বিস্তৃত বিবরণ। এজন্য হাদীছ ছাড়া কুরআনের মর্ম বুঝা অসম্ভব। তাই যারা নিজেদেরকে ‘আহলে কুরআন’ দাবী করে, …

Read more

Share:

আহলে কুরআন বা হাদীস অস্বীকারকারীদের উৎপত্তি কখন থেকে এবং ভারতবর্ষে হাদীস অস্বীকারকারীদের উৎপত্তি কখন থেকে

ভূমিকা: ইতিহাসে আজ থেকে প্রায় ১৫০০ বছর পূর্বে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মানব মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর ভবিষ্যদ্বাণীর একটি বাস্তব চিত্র হলো ভ্রান্ত ফেরকা আহলে কুরআন দাবিদার মুনকিরুল হাদীস। রাসূল (ﷺ) উক্ত দল সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী করে বলেন, ‘জেনে রাখো আমাকে কিতাব (কুরআন) এবং তার সাথে অনুরূপ একটি বস্ত্ত দেয়া হয়েছে। অচিরেই এমন এক সময় আসবে যখন কোন …

Read more

Share:

আহলে কুরআন শব্দের অর্থ এবং আল-কুরআন ও সহীহ হাদীসের আলোকে আহলে কুরআনদের অবস্থান

আহল অর্থ অনুসারী, পরিবার ইত্যাদি। কুরআন শব্দটি আরবী ‘কারাআ’ ক্রিয়াপদের উৎস থেকে উৎসারিত। যার অর্থ পড়, শেখ, অনুধাবন কর, বুঝ, মুখস্থ রাখ, বহন কর, ইবাদতে মশগুল থাক ইত্যাদি। মহান আল্লাহ বলেন, اِنَّ عَلَیۡنَا جَمۡعَہٗ وَ قُرۡاٰنَہٗ – فَاِذَا قَرَاۡنٰہُ فَاتَّبِعۡ قُرۡاٰنَہٗ ‘কুরআন সংরক্ষণ ও পাঠ করাবার দায়িত্ব আমারই। সুতরাং যখন আমি তা পাঠ করি তুমি …

Read more

Share: