কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক বার্তা প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।।

বিদআতিদের পরিচয় ও আলমত প্রসঙ্গে পূর্বসূরিদের কয়েকটি উক্তি

বিদআতিদেরকে চেনার জন্য পূর্ববর্তী জগদ্বিখ্যাত আলেমগণ বিভিন্ন আলামতের কথা বলেছেন। নিম্নে তাদের বক্তব্যের আলোকে এ জাতীয় কিছু আলামত তুলে ধরা হল। এসব আলামত দেখে আমরা খুব সহজে আমাদের আশেপাশে অবস্থানকারী ইসলামের লেবাসধারী বিদআতিদেরকে চিনে নিতে পারব ইনশাআল্লাহ।

✪ ১. আবু আইয়ুব সিখতিয়ানি রহ. [ জন্ম: ৬৬-মৃত্যু: ১৩১ হি.] বলেন,
لا أعلم اليوم أحداً من أهل الأهواء يخاصم إلا بالمتشابه
“আমি আজ পর্যন্ত এমন একজনও প্রবৃত্তি পূজারী (বিদআতি) এর ব্যাপারে জানি না, যে মুতাশাবিহ (অস্পষ্ট, জটিল ও ব্যাখ্যা স্বাপেক্ষ আয়াত বা হাদিস) ছাড়া ঝগড়া করে।”

✪ ২. কুতাইবা বিন সাঈদ [জন্ম: ১৫০ ও মৃত্যু: ২৪০ হি.] বলেন,

إذا رأيت الرجل يحب أهل الحديث فإنه على السنة, ومن خالف هذا فاعلم أنه مبتدع
“যখন কাউকে আহলে হাদিস (হাদিস বিশারদ ও হাদিসের অনুসারী)কে ভালবাসতে দেখবে তখন জেনে নিবে সে হল, সুন্নাহর অনুসারী আর যে এর বিরোধিতা করবে জেনে নিবে, সে বিদআতি।”

✪ ৩. আবু হাতিম আর রাযী [জন্ম: ১৭৭-মৃত্যু: ২৯৫হি.] বলেন,
علامة أهل البدع الوقيعة في أهل الأثر.
“আহলুল বিদআত (বিদআতের অনুসারী) এর আলামত হল, আহলুল আসার (হাদিসের অনুসারী)দের কুৎসা বর্ণনা করা।”

✪ ৪. ইমাম আল বার বিহারী [মৃত্যু: ৩২৯ হি.] বলেন,
إذا رأيت الرجل يطعن على أحد من أصحاب رسول الله ـ صلى الله عليه وسلم ـ فاعلم أنه صاحب قول سوء وهوى
“যখন কোন ব্যক্তিকে দেখবে যে, সাহাবিদের প্রতি আক্রমণাত্মক ও অপবাদ মূলক কথা বলছে তখন জেনে নাও সে হল, প্রবৃত্তি পূজারী ও খারাপ কথার মানুষ।”

● তিনি আরও বলেন,
إذا سمعت الرجل يطعن على الآثار, أو يرد الآثار, أو يريد غير الآثار , فاتهمه على الإسلام, ولا تشك أنه صاحب هوى مبتدع
“যখন কারো ব্যাপারে শুনবে যে, সে আসার (রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর হাদিস, সাহাবিদের উক্তি, অভিমত ইত্যাদি) কে আক্রমণাত্মক ভাষায় সমালোচনা করছে বা আসারের জবাব দিচ্ছে বা আসার ছাড়া অন্য কিছু চাচ্ছে তখন তার ইসলামকেই অভিযুক্ত করো আর এ ব্যাপারে কোনও সন্দেহ করো না যে, সে হল, প্রবৃত্তি পূজারী (বিদআতি)।”

● তিনি আরও বলেন,
إذا رأيت الرجل يدعو على السلطان فاعلم أنه صاحب هوى
“যখন তুমি দেখবে, কোন ব্যক্তি সুলতান (মুসলিম শাসক) এর উপর বদ দুআ করছে তখন জেনে নাও যে, সে ব্যক্তি হল প্রবৃত্তি পূজারী (বিদআতি)।”

✪ ৫. ইমাম আবু উসমান আস সাবুনি [জন্ম: ৩৭৩ ও মৃত্যু: ৪৪৯ হি.] বলেন,
علامات البدع على أهلها بادية ظاهرة، وأظهر آياتهم وعلاماتهم: شدة معاداتهم لحملة أخبار النبي –صلى الله عليه وسلم- واحتقارهم واستخفافهم بهم [عقيدة السلف:101]

“বিদআতিদের উপর বিদআতের আলামত অত্যন্ত সুস্পষ্ট। তাদের সবচেয়ে স্পষ্ট আলামত হল, তারা নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর হাদিসের ধারক-বাহকদের প্রতি প্রচণ্ড বিদ্বেষ পোষণ করে এবং তাদেরকে হেয় ও তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করে।” [আকিদাতুস সালাফ ১০১]

✪ ৬. ইবনুল কাত্তান [জন্ম: ৫৬২ ও মৃত্যু: ৬২৮ হি.] বলেন,
ليس في الدنيا مبتدع إلا وهو يبغض أهل الحديث
“দুনিয়াতে এমন কোনও বিদআতি নাই যে, আহলুল হাদিস (হাদিস বিশারদ ও হাদিসের অনুসারী)দের প্রতি বিদ্বেষ পোষণ করে না।”
উৎস: minhaajannubuwatanzania.over-blog
আল্লাহ তাআলা ইসলাম ও মুসলিমদের বিদআতিদের অনিষ্ট থেকে রক্ষা করুন। আমিন।
▬▬▬▬◍◯◍▬▬▬▬
অনুবাদ ও গ্রন্থনা:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ সেন্টার, সৌদি আরব

Share This Post
Translate In English